চন্দনাইশে কৃষিনির্ভর শিল্পাঞ্চল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় করার দাবি

‘চন্দনাইশের উন্নয়ন, সমস্যা, সম্ভাবনা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা
চন্দনাইশে কৃষিনির্ভর শিল্পাঞ্চল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় করার দাবি
নিজস্ব প্রতিনিধি:  ‘চন্দনাইশের উন্নয়ন, সমস্যা, সম্ভাবনা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা চন্দনাইশে কৃষিনির্ভর শিল্পাঞ্চল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় করার দাবি জানান।উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে চন্দনাইশেও। তৈরী হয়েছে নিত্য নতুন কালভার্ট ও রাস্তাঘাট। শঙ্খ নদীর ভাঙন ঠেকাতেও নেওয়া হয়েছে নানা প্রকল্প। এত উন্নয়নের ভিড়েও নানা ধরণের সমস্যা রয়ে গেছে এ জনপদে। চন্দনাইশের এসব সমস্যা ও সম্ভাবনার কথা উঠে এসেছে ‘চন্দনাইশের উন্নয়ন, সমস্যা, সম্ভাবনা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজনে। চন্দনাইশ মিডিয়া ক্লাব-চট্টগ্রামের উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার ২ নভেম্বর সকালে নগরের আগ্রাবাদ এলাকার ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে এ গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে বক্তারা চন্দনাইশে কৃষিনির্ভর শিল্পাঞ্চল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় করার দাবি জানান। এছাড়াও চন্দনাইশে গ্যাস লাইন যুক্ত করা, মাদক নির্মূল, কারিগরি বিদ্যালয় নির্মাণ, বাস টার্মিনাল নির্মাণসহ নানা ধরণের দাবি উপস্থাপন করেন বক্তারা। বাণিজ্য, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, পর্যটন, যোগাযোগ, নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন সেক্টরে আরও উন্নয়ন করার দাবি জানানো হয় এই বৈঠকে। গোলটেবিল বৈঠকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, ‘আমাদের নিজেদেরকে প্রস্তুত হতে হবে ভালো কিছুর জন্য। ভালো কিছু আসলে তা গ্রহণের মতো যোগ্যতাও থাকা প্রয়োজন। আমাদের ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরীতে মনোযোগ দিতে হবে। চন্দনাইশের পেয়ারা, লেবু ও বিভিন্ন পণ্যের ব্র্যান্ডিং প্রয়োজন। তবেই চন্দনাইশ পুরো দেশে আরও সুপরিচিত হবে।’ এসময় বৈঠকে উঠে আসা নানা দাবি প্রসঙ্গে হোসেন জিল্লুর বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা না হলে তা আলোর মুখ দেখে না। তাই এই বৈঠকের বিভিন্ন দাবিগুলো নিয়ে আরও বিষদভাবে আলোচনা ও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।’ বৈঠকে চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘চন্দনাইশে উন্নয়ন চলছে। রাস্তাঘাট তৈরী হচ্ছে। শঙ্খ নদীর ভাঙন ঠেকাতে নানা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। চন্দনাইশে কৃষিনির্ভর শিল্পাঞ্চল ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় করার জন্য মন্ত্রনালয়ে চাহিদা পত্র পাঠানো হয়েছে।’ এ গোলটেবিল বৈঠক পরিচালনা করেন সভাপতি- যমুনা টেলিভিশনের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রদান জামসেদ চৌধুরী। চন্দনাইশ মিডিয়া ক্লাব চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক এম এ হোসাইনের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হয় আয়োজন। এরপর একে একে এ বৈঠকে বক্তব্য রাখেন চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক আবুল ফয়েজ, চন্দনাইশ পৌরসভার মেয়র মাহবুবুল আলম খোকা, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, বিএনপি নেতা ডা. মহসিন জিল্লুর করিম, জাসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অভীক ওসমান, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম মহাসচিব স উ ম আবদুস সামাদ, রিহ্যাব-চট্টগ্রাম চ্যাপ্টারের চেয়ারম্যান আবদুল কৈয়ুম চৈৗধুরী, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্সের সহসভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জাহেদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক আবু আহমেদ জুনু, চসিক প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, বাংলাদেশ ব্যাংক যুগ্ম পরিচালক একরাম হোসেন, উপজেলা এলডিপি সভাপতি মোতাহের মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আকতার আলম, চন্দনাইশ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো.বাদশা মিয়া, চন্দনাইশ উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক মোহাম্মদ তৌহিদুল আলম, উপজেলা পরিষদ প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান খালেদা আক্তার চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতি সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাজিম উদ্দিন, বিএনপি নেতা এম এ হাশেম রাজু, চন্দনাইশ সমিতি সৌদিআরব সভাপতি মোজাম্মেল হক, জাপান আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. নাসির উদ্দীন জয়, জগৎ অনাথ আশ্রম সম্পাদক তিন কড়ি চক্রবর্তী, ন্যাশনাল গ্রুপ অব কোং চেয়ারম্যান কমর উদ্দীন সবুর, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আইনুল কবির, বরকল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান, বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি এডভোকেট সিরাজ-উদ-দৌলাসহ চন্দনাইশের রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবীসহ ছাত্রসংগঠনের প্রতিনিধিরাও বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*