নওগাঁর মান্দায় এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা!

নওগাঁর মান্দায় এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা!

মাহবুবুজ্জামান সেতু, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর মান্দায় জিন্নাতুন বেগম (৪৩) নামে এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার দিবাগত রাতে এ ঘটনাটি ঘটে। জিন্নাতুন উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের মিরপুর গোল্লাপাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের মেয়ে। নিহতের ভাই নজরুল ইসলাম সরদার সহ স্থানীয়রা জানান, আমার বোন জিন্নাতুনের ইতিঃপূর্বে ১ম বিয়ে হয়েছিল পারইল গ্রামের গ্রামের বদের আলীর সাথে। জানা যায়,তার ১ম পক্ষের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। পরবর্তীতে ওই স্বামীর সংসার ভেঙ্গে যাওয়ায় দীর্ঘদিন বাড়িতে থাকার পর, জিন্নাতুন ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। সে সুবাদে সেখানে ঢাকার স্থানীয় সুলতান নামের এক ব্যাক্তির সঙ্গে তার বিয়ে হয়, যিনি হ্যাঙ্গার কোম্পানিতে কাজ করতেন। প্রায় আড়াই বছর সংসার করার পর স্বামীকে রেখে বাবার বাড়িতে ফিরে আসেন। গ্রামে ফিরে এসে বাবার জমিতে ২য় স্বামী সুলতানের আর্থিক সহযোগিতায় একটি পাকা ঘর নির্মাণ করে সে বাড়িতে একাই বসবাস করতেন। কয়েকমাস থেকে স্বামীর সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন তিনি। নিহতের মা নুরজাহান জানায়, মঙ্গলবার সকালে রান্না করার এক পর্যায়ে পার্শ্বে অবস্থিত আমার নিহত মেয়ে জিন্নাতুনের বাড়িতে রাখা ফ্রিজ থেকে নাতনী ফারজানাকে মাছ আনতে পাঠিয়ে দিলে ফারজানা আমার মেয়ে জান্নাতুনকে রক্তাক্ত অবস্থায় মেঝেতে তার গলাকাটা লাশ দেখতে পেয়ে ভয়ে চিৎকার দিয়ে আমাদেরকে বিষয়টি অবগত করলে তাৎক্ষনিকভাবে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। হত্যাকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, মান্দা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার হাফিজুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুজাফ্ফর হোসেন এবং ইন্সপেক্টর -তদন্ত মাহবুব অালমসহ সঙ্গীয় ফোর্স। মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, সকালে সংবাদ পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসার পর ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওসি আরোও জানান, এব্যাপারে মান্দা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*