চমেক হাসপাতালে অত্যাধুনিক রেডিওথেরাপি মেশিন উদ্বোধন করলেন মেয়র

চমেক হাসপাতালে অত্যাধুনিক রেডিওথেরাপি মেশিন উদ্বোধন করলেন মেয়র
নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ক্যানসার চিকিৎসায় অত্যাধুনিক রেডিওথেরাপি(কোবাল্ট-৬০) সেবা কার্যক্রম চালু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে হাসপাতালের রেডিওথেরাপি বিভাগের একটি কক্ষে এটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। এই সময় উপস্থিত ছিলেন চমেক এর পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদ,চমেকের উপাধ্যক্ষ প্রদীপ কুমার,বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি প্রফেসর ডাক্তার মুজিবুল হক খান,সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, রেডিওথেরাপি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাক্তার সাজ্জাদ মোহাম্মদ ইউসুফ ও সার্জন ডাক্তার আলী আজগর চৌধুরী সহ চমেক এর শিক্ষক্ষ ও শিক্ষার্থীগন । এই উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে সিটি মেয়র বলেন ক্যানসারের চিকিৎসা অনেক ব্যয়বহুল। বিগত কয়েক বছর যাবৎ এ রোগের ভালো কোনো চিকিৎসা না থাকায় এতদাঞ্চলে রোগীদের অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতো। অনেকেই টাকার অভাবে এই চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হতো। এই রেডিওথেরাপি মেশিনটি চালু হাওয়ায় ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীদেরকে ৮/১০হাজার টাকার মধ্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া সম্ভব হবে। সেই সাথে রোগীদের ভোগান্তি অনেকাংশে কমে যাবে।বৃহত্তর চট্টগ্রামের লাখো ক্যানসার রোগীর জন্য এই মেশিনকে আশীবাদস্বরুপ উল্লেখ করে মেয়র বলেন এখন থেকে কোনো ক্যানসার রোগীকে বিদেশ কিংবা চট্টগ্রামের বাইরে যেতে হবে না। প্রতিদিন এই মেশিনটি থেকে ৯০ থেকে ১০০জন ক্যানসার রোগী সেবা নিতে পারবে। এছাড়া এসব রোগীদের জন্য চমেক হাসপাতালে অচিরে ১০০ শর্য্যা বিশিষ্ট একটি ক্যানসার ইউনিট প্রতিষ্টা করা হবে । মেয়র বলেন এই হাসপাতালটি যুগের চাহিদা মেটাতে প্রতিনিয়ত হিমশিম খাচ্ছে। ১৩০০ বেডে এই হাসপাতালটি এখন প্রতিদিন সাড়ে ৩ হাজার রোগীকে সেবা দিচ্ছে। ডাক্তার,নার্স,আয়াসহ বিভিন্ন পদে নিয়োজিত লোকবল নিয়োজিত আছে ১৩শত রোগীর জন্য। ফলে রোগীরা এই হাসপাতাল থেকে প্রত্যাশিত সেবা পাচ্ছেন না বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন বর্তমান সরকার একটি স্বাস্থ্য বান্ধব সরকার। চমেক হাসপাতালের চিকিৎসার সেবা মান বৃদ্ধির জন্য সরকার বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহন করেছে । রোগীর রোগ নির্ণয় ও নিরাময়ের জন্য অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে আসছে। রেডিওথেরাপি মেশিনএর একটি অংশ। এজন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,স্বাস্থ্য মন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ঠদের প্রতি কর্তৃজ্ঞতা প্রকাশ ও ধন্যাবাদ জানান সিটি মেয়র। হাসপাতালে সবকয়টি টয়লেটের অবস্থা খারাপ। ফলে রোগীদের রোগ আরও বেড়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় মেয়র সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সব কয়টি টয়লেট সংস্কার করে দেয়ার আশ্বাস দেন । সভায় সভাপতিত্ব করেন চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমদ। বক্তব্য রাখেন চমেকের উপাধ্যক্ষ প্রদীপ কুমার,বিএমএ চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি প্রফেসর ডাক্তার মুজিবুল হক খান,সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার ফয়সল ইকবাল চৌধুরী ও রেডিওথেরাপি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাক্তার সাজ্জাদ মোহাম্মদ ইউসুফ। সঞ্চলনায় ছিলেন রেডিওথেরাপি সার্জন ডাক্তার আলী আজগর চৌধুরী।
এই রেডিওথেরাপি মেশিনের মাধ্যমে চট্টগ্রামে কম খরচে গরীব অসহায় রোগীদের ক্যান্সারের অত্যাধুনিক চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেয়া সম্ভব হবে। ক্যান্সার ওর্য়াড সূত্রে জানা গেছে উন্নত প্রযুক্তির নতুন কোবাল্ট মেশিনটি থেকে তিন রকমের সেবা পাওয়া যাবে। এগুলো হচ্ছে টু ডাইমেনশনাল এবং টানলি বিম রেডিয়েশন থেরাপী (টুডি ইবিআরটি), থ্রি ডি ইবিআরটি এবং ইনটেনসিটি মডিউলেটেড রেডিয়েশন থেরাপী (আইএমআরটি)। এর মধ্যে থ্রিডি ইবিআরটি ও আইএমআরটি হচ্ছে আধুনিক পর্যায়ের সেবা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*