এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু জাতীয় পার্টির সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হিসেবে আলোচনায়

এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু জাতীয় পার্টির
সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হিসেবে আলোচনায় !

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয় পার্টির সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচ.এম এরশাদ এমপি’র ¯েœহ ভাজন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা, জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদিকা, হাস্য উজ্জ্বল ফোরাম (হাউফো)’র কেন্দ্রীয় ভাইস-চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট সমাজ সেবিকা, মানবাধিকার কর্মী ও নারীনেত্রী এ্যাডভোকেট শাহিদা রহমান (রিংকু)।
জানা যায়, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে জাতীয় পার্টির রাজনৈতিক মহল, ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীরা নানা রকম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে তাকে এমপি হিসেবে দেখতে চান। তাদের মতে ত্যাগী নারীনেত্রী এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু একাদশ সংসদ নির্বাচন সহ এর আগে ও পরে বিভিন্ন সময়ে দলের জন্য কাজ করেছেন। বর্তমানেও বিভিন্ন ভাবে দলের জন্য কাজ করে চলছেন তিনি। তাই সংরক্ষিত নারী আসনে তাকে এমপি হিসেবে দেখতে চাইছেন, দলীয় নেতাকর্মী, ভক্ত ও শুভাকাঙখীরা।
এব্যাপারে তার রাজনৈতিক মহল, ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীরা বলেন, জাতীয় পার্টি তথা মহাজোট প্রার্থীর জন্য সবসময় মাঠে ছিলেন নারীনেত্রী এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু। একাদশ সংসদ নির্বাচন সহ এর আগে ও পরে বিভিন্ন সময়ে দলের জন্য কাজ করেছেন এবং বর্তমানেও বিভিন্ন ভাবে দলের জন্য কাজ করে চলছেন তিনি। তাই তাকে আমরা সংরক্ষিত আসনে এমপি হিসেবে দেখতে চাই। এছাড়াও তিনি জাতীয় পার্টির বিভিন্ন কর্মকান্ড ব্যতিক্রমভাবে তুলে ধরেছেন। আর দলের সুখে-দুঃখে সাথেই ছিলেন তিনি। তাই তাকে সংরক্ষিত এমপি করা এখন সময়ের দাবিতে পরিণত হয়েছে।
এব্যাপারে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি কবি রিতু নুর তার ফেসবুকে স্ট্যাটাসে মনেরভাব প্রকাশ করতে গিয়ে লিখেছেন জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট শাহিদা রহমান রিংক’ুকে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি দেখতে চাই। এই হাসি-খুশি মানুষটি দলকে ভালোবেসে মহিলাদের পাশে নিয়ে সকাল সন্ধ্যা চলছে অবিরাম; আর বাংলার পথে পান্তরে দলের জন্য কাজ করে চলছেন। তার নেই কোন অহংকার, নেই বিদ্বেষ। তার উদ্দেশ্য একটাই, সবার সেবা করা। আর অসহায় মানুষ সহ সর্বস্তরের জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে সুখ-দুঃখের সাথী হওয়া। আমি তার সৌভাগ্য কামনা করছি, আমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*