রাজশাহীর পুঠিয়ায় সরিষায় বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

রাজশাহীর পুঠিয়ায় সরিষায় বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পুঠিয়ায় মাঠে মাঠে বিস্তর এলাকাজুড়ে সরিষার ব্যাপক চাষাবাদ হয়েছে। ফুলের মৌ মৌ গন্ধ সুবাস ছড়াচ্ছে পুরো এলাকায়। এবার প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে, ফলন ভাল হবে বলে আশা করছেন কৃষকরা। পুঠিয়া উপজেলা সরিষা ফুলে ভরে গেছে ফসলের মাঠ। চারদিকে তাকালে যেন সবুজের ফাকে হলুদের সমাহার। এবং উপজেলার বেলপুকুর ইউনিয়নের ভাংড়া ব্লকের কাজীরপাড়া মাঠে এসকেন্দারের জমিতে মৌমাছি দিয়ে মধু সংগ্রহের কাজ চলছে। ১০ দিন ধরে পোষা মৌমাছির ৫ টি বাক্স নিয়ে সরিষা ফুলের মধু সংগ্রহ করছেন। এখানে সরিষার ফুল থেকে মৌমাছি দিয়ে মধু সংগ্রহ করে কৃষক যেমন লাভোবান হচ্ছেন ঠিক তেমনি মৌমাছির ব্যাপক পরাগায়নের ফলে সরিষার বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন স্থানীয় চাষিরা ও কৃষি অফিস ।
কৃষি অফিস সূত্রে জানাযায়, এ বছর  ১২শ ৫০ হেক্টর জমিতে সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। এবং উৎপাদন লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ১৭শ ৫০ মেক্টিকটন । যা গতবারের চেয়ে প্রায় ৩ মেক্টিকটন উৎপাদন বেশি ।
সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়, সরিষার ফুলে ফুলে ও মৌ মৌ গন্ধে ভরে উঠেছে পুঠিয়ার বিভিন্ন  ইউনিয়নের ফসলি সরিষা ক্ষেত। মাঠের চারিদিক যেন হলুদে হলুদে পরিপূর্ণ। এক দেখাতেই মন কাড়বে দর্শনার্থীদের। সরিষা ফুলের শোভা আরো বাড়িয়ে তুলেছে অসংখ্য মৌমাছির দল গুণগুনিয়ে মধু আহরণের ব্যাস্ততায়।
উপজেলার কার্তিকপাড়া ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সোমা খাতুন  বলেন, আমার ব্লকে লক্ষীরানি নামে এক মহিলা চাষিকে NATP-2 প্রকপ্লের নতুন জাত বারি-১৫ প্রদর্শনী দিয়েছি ফুল খুব ভাল এসেছে এবার কৃষকদের সরিষা চাষে তাদের মুখে যেন হাসির ঝিলিক লক্ষ করা গেছে । তবে প্রাকৃতিক কোন দুর্যোগ না হলে এবার বাম্পার ফলন হবে।
পুঠিয়া উপজেলা কৃষি অফিসার, এ কে এম মনজুরে মাওলা বলেন, উপজেলার বেলপুকুর ইউনিয়নের ভাংড়া ব্লকে মৌমাছি দিয়ে মধু সংগ্রহের কাজ চলছে। সরিষার ফুল থেকে মৌমাছি দিয়ে মধু সংগ্রহ করে কৃষক যেমন লাভোবান হচ্ছেন ঠিক তেমনি মৌমাছির ব্যাপক পরাগায়নের ফলে সরিষার বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করেন এই কর্মকর্তা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*