কুমিল্লায় অসহায় পরিবারের উপড় সন্ত্রসী হামলা ও ভাঙ্গচুর পরিবারসহ অাতংকিত এলাকাবাসি

কুমিল্লায় অসহায় পরিবারের উপড় সন্ত্রসী হামলা ও ভাঙ্গচুর পরিবারসহ অাতংকিত এলাকাবাসি

স্টাফ রিপোর্টার।। কুমিল্লায় বরুড়ায় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হওয়া পরিবারটি বিচারের আশায় বসে আছে। জানা গেছে, কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার পয়ালগাছা ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর শোলা পুকুরিয়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের পরিবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়। তাতে হাবীবুর রহমান (৭৫) সহ আহত হয় তার পুত্রবধূ রেহানা আক্তার (২৫) এবং তার স্ত্রী আমেনা বেগম (৬৫) । আহত হাবিবুরের পুত্রবধূ রেহানা আক্তার জানায়, তাদের পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জায়গা-জমি সংক্রান্ত ঝামেলা চলে আসছিল একই গ্রামের আমিনুল ইসলামের পরিবারের সাথে, সেজন্য গত শুক্রবার (৪জানুয়ারি) সকাল ১১টায় আমিনুল ইসলামের ছেলে বিল্লাল ওরফে বিল্লাল খোকন ১০-১২জন সন্ত্রাসী নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালায়, তাদের বসত ঘরসহ বাড়ির চতুর্পাশের টিনের বেড়া ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে লন্ড-ভন্ড করে দেয়। বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসী বাহিনী আমার উপর চড়াও হয় এবং চাইনিজ কুড়াল দিয়ে আমার মাথায় কোপ দেয়। তাতে আমার মাথা থেকে অনেক রক্তক্ষরণ হলে আমি জ্ঞান হারিয়ে ফেলি, জ্ঞান ফিরে দেখি আমি হাসপাতালের বেডে শুয়ে আছি।আমার সাথে আমার শ্বশুর- শাশুড়িও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পরে আমরা বরুড়া থানায় মামলা করতে গেলে বরুড়া থানার ওসি ব্যস্ততা দেখিয়ে আমাদের সময় দিতে পারেননি তাই আমরা মামলা করতে পারিনি। হামলাকারীরা এখনো নানানভাবে আমাদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে, আমরা খুবই নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি । জানতে চাইলে, বিল্লাল খোকন ফোনে জানায়- সে কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ- সভাপতি, বরুড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ- সভাপতি এবং বর্তমানে পয়ালগাছা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি। হামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*