লন্ডনে সংবর্ধিত হলেন তরুণ উদ্যোক্তা সীতাকুণ্ডের কৃতি সন্তান মহিউদ্দীন বহদ্দা চৌধুরী

লন্ডনে সংবর্ধিত হলেন তরুণ উদ্যোক্তা সীতাকুণ্ডের কৃতি সন্তান মহিউদ্দীন বহদ্দা চৌধুরী
আবদুর রাজ্জাক,বিশেষ প্রতিনিধি: লন্ডনে সংবর্ধিত হলেন তরুণ সফল উদ্যোক্তা সীতাকুণ্ডের কৃতি সন্তান মহিউদ্দীন বহদ্দা চৌধুরী। যুক্তরাজ্য এবং বাংলাদেশী কমিউনিটিতে ক্রমবর্ধর্মাণ কর্মসংস্হান সৃষ্ঠিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখায় গত ৯ জুন রোববার দ্যা রয়েল রিজেন্সি হলে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত বাঙ্গালীদের বৈশাখী উদযাপন অনুষ্ঠানে লন্ডন উৎসব ট্রাস্ট এর পক্ষ থেকে সফল উদ্যোক্তা হিসেবে তাকে এ সংববর্ধনা দেয়া হয়।
জানা যায়, তিনি লণ্ডনে দীর্ঘদিন যাবৎ সুনাম ও সততার সাথে নানান ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন অভিবাসী কমিউনিটিতে বিশেষ করে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে সেবা দিয়ে আসছেন। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে দেশি ও বিদেশি মিলে সর্বসাকুল্যে ১ শ’রও বেশি লোক কর্মরত আছেন। এছাড়াও বাংলাদেশে তার নিজস্ব দুইটি কল সেন্টারে বর্তমানে 20 এর অধিক তরুণ / যুবক কর্মরত আছেন। লন্ডন সিটিতে রয়েছে প্রধান অফিস। এছাড়াও বার্মিংহাম, ম্যানচেষ্টার, ব্রাডফোর্ট, লোটন, লিডস, লেইষ্টার, কার্ডিফ, স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো ও আয়ারল্যান্ডের বেলফাষ্ট এ শাখা অফিস রয়েছে। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রতিনিয়ত সীতাকুণ্ডের বেকার যুবকের নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। এছাড়াও নিজ এলাকাসহ সীতাকুণ্ডের হত দরিদ্র, রোগাক্রান্ত এবং গরীব ছাত্র/ছাত্রীদের আর্থসামাজিক অনুদানের মাধ্যমে পাশে দাঁড়িয়েছেন।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, তিনি ছাত্র অবস্থা থেকেই এ ধরনের আর্থসামাজিক কর্মকান্ডের সাথে নিয়মিত যুক্ত ছিলেন. তাছাড়া এ ব্যাপারে তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তার ছোট ভাই আদমজী চৌধুরী জানান, আমার ভাই ইতিমধ্যে তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং দোয়া চেয়েছেন এবং আশা করি ভবিষ্যতে সবার সহযোগিতা থাকলে বাংলাদেশ আরো নানামুখী উদ্ভাবনী ব্যবসায়িক সম্প্রসারণ এর ইচ্ছা আছে বলে তিনি জানান.
উল্ল্যেখ্য মহিউদ্দীন বহদ্দা চৌধুরী যুক্তরাজ্য-সীতাকুণ্ড সমিতি এর প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদক সহ বিভিন্ন সামাজীক ও ক্রীড়া সংগঠনের সাথে যুক্ত রয়েছেন। তিনি সীতাকুণ্ড উপজেলার পূর্ব মুরাদপুর, পেশকার পাড়া, বহদ্দা বাড়ীর মরহুম আলী হাছান চৌধুরীর পুত্র.।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*