লামায় বজ্রপাতে কৃষক নিহত:পরিবারের দাবী পরিকল্পিত খুন

লামায় বজ্রপাতে কৃষক নিহত:পরিবারের দাবী পরিকল্পিত খুন
চকরিয়া প্রতিনিধিঃ পার্বত্য লামার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নে বজ্রপাতে মাসুক আহাম্মদ (৫৫) নামের এক কৃষক নিহত হয়েছে। লামা-চকরিয়া সীমান্তের কাছে জঙ্গলে নিহতের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। সে লামা উপজেলার ফাসিয়াখালীইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের পাইন্যা ঝিরি এলাকার মৃত আব্দুর শুক্কুরের ছেলে। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেল ৬টায় পাশ্ববর্তী চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী সংরক্ষিত বনাঞ্চলের রিংভং এলাকার পাইন্যা ঝিরি নামক স্থানে বেলজিয়াম বাগানের মধ্যে তার মৃতদেহ পাওয়া গেছে। তার বাহুতে পুড়ে যাবার চিহ্ন রয়েছে। স্থানীয়রা খবর পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে লামা ও চকরিয়া উভয় থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ঘটনাস্থলটি দুই উপজেলার সীমান্তবর্তী হলেও নিহতস্থল চকরিয়া উপজেলায় পড়েছে।নিহতের স্ত্রী হাসনা বেগম বলেন, আমার স্বামী পেশায় একজন কৃষক। তারা লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের পাইন্যা ঝিরি গ্রামের বাসিন্দা।বৃহস্পতিবার সকালে তার স্বামী বাড়ীর নিকটস্থ সামাজিক বনায়নের বাগান দেখাশুনার জন্য যায়। দুপুরে বৃষ্টি হয়। বৃষ্টির পর তিনি আর বাড়িতে ফিরে আসেনি। বিকেলেও ফিরে না আসলে আমরা খোঁজাখুজি শুরু করি। অবশেষে বিকাল ৬টার দিকে রিজার্ভ বাগানের সামাজিক বনায়ন এলাকার বেলজিয়াম বাগানের মধ্যে লাশ দেখতে পাই। বিষয়টি সাথে সাথে মেম্বার ও থানাকে অবহিত করি। তিনি আরো বলেন, বাগান ও জমির বিরোধের জেরে  চকরিয়ার পালাকাটার কতিপয় ব্যক্তির সাথে দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল। সম্ভবত তাদের হাতেই আমার স্বামী খুন হয়েছে। মনে হচ্ছে খুনের পর নিহতের গায়ে এসিড ঢালা হয়েছে। নিহতের শরীরের অনেক স্থানে চামড়া উঠে গেছে। আমি তার খুনের বিচার চাই। তবে প্রত্যক্ষ দর্শীদের মতে বজ্রপাতে কৃষক মাসুকের মৃত্যু বরন করেছেন।লামার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো. আলমগীর বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। স্থানটি চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডে পড়েছে। মাসুক আহাম্মদের ৩ মেয়ে ২ ছেলে রয়েছে। চকরিয়া থানার পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরন করেছে। পার্শ্ববর্তি বাগানের মালিক ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এবং চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু। জানতে চাইলে জাহেদুল ইসলাম লিটু বলেন, পালাকাটাকে নেতৃত্বশুন্য করার জন্য একটি মহল উঠে পড়ে লেগে আছে। কোথাও কোন অঘটন ঘটলেই পালাকাটার লোকজনের উপর চাপিয়ে দিতে চেষ্টা করা হয়। পালাকাটার লোককে জড়িত করতে পারলেই তারা খুশি। ঐসব কুচক্রীমহলের ষড়যন্ত্র ছাড়া কিছুই নয়।এ ব্যাপারে চকরিয়া-পেকুয়ার সাংসদ জাফর আলম এমপি’ বলেন, নিহত কৃষক মাসুক একজন গরীব মানুষ। তাকে কেউ হত্যা করবে বলে আমার মনে হয়না। বজ্রপাতেই হয়ত তার মৃত্যু হয়েছে। তারপর ও পোষ্ট মর্টেম রিপোর্ট কি বলে দেখা যাক। এর আগে মন্তব্য করা উচিৎ হবে না। তবে নিহতের পরিবার ময়না তদন্তের পর মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*