একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ছাত্রসেনা ফটিকছড়ির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত!

একাদশ সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ছাত্রসেনা ফটিকছড়ির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত!

ফটিকছড়ি প্রতিনিধিঃআসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা বৃহত্তর ফটিকছড়ি উপজেলার উদ্যোগে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। আজ( ১৪ সেপ্টেম্বর) শুক্রবার বিকালে ফটিকছড়ি সদর মনিরা কমিউনিটি সেন্টারে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা ফটিকছড়ি উপজেলা দক্ষিণ শাখার সভাপতি জুনায়েদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম শহীদুল্লাহ।এতে আলোচক ছিলেন ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ সভাপতি জি.এম শাহাদত হোসাইন মানিক। বর্ধিত সভায় ছাত্রসেনা ফটিকছড়ি উত্তরের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আজিজুল হক ও ফটিকছড়ি দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক হামিদুল ইসলামের যৌথ সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, ছাত্রসেনার কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ খোবাইব, সিনিয়র সহ-সাধারণ সম্পাদক শাহজাদা নিজামুল করিম সুজন,কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর হোসাইন,কেন্দ্রীয় সদস্য আলী আকবর,দিদারুল আলম কাদেরী,চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ ফরিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা সভাপতি মুহাম্মদ সরওয়ার চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মফিজুর রহমান,কেন্দ্রীয় নেতা মুহাম্মদ জাবের হোসাইন, ফটিকছড়ি উত্তরের ফ্রন্টের সভাপতি মইনুল আলম চোধুরী, বর্ধিত সভার আহবায়ক ফটিকছড়ি দক্ষিণ ছাত্রসেনার সভাপতি মাওলানা নাজিম উদ্দীন,ফটিকছড়ি উত্তর ফ্রন্ট নেতা বর্ধিত সভার সচিব মুহাম্মদ শাহজাহান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এইচ এম শহীদুল্লাহ বলেন, বর্তমানে দেশে নির্বাচনের নামে এক প্রকার প্রহসন চলছে। জনগণের যথাযথ ভোটাধিকার প্রয়োগের অধিকার বিভিন্নভাবে হরণ করা হচ্ছে। সাধারণ জনগণ এতে ক্ষুদ্ধ। জনগণের ভোট ও ভাতের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য জাতীয় পার্টি ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নেতৃত্বে সম্মিলিত জাতীয় জোট গঠন করা হয়েছে। আর ছাত্রসেনা হচ্ছে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ট্রাম্পকার্ড। চট্টগ্রামে ছাত্রসেনার সুশৃঙ্খল বিশাল কর্মী বাহিনী নির্বাচন পর্যন্ত ইসলামী ফ্রন্টের সাথে রাজপথে থেকে ভোট ডাকাতি প্রতিরোধ করবে। জনগণের অধিকার আদায়ের এ মিশনে ইসলামী ফ্রন্টের ‘মোমবাতি’র বিজয় নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব। ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ফটিকছড়ি ফ্রন্ট নেতা- এস,এম জাহাংগির আলম, ইদ্রিস হায়দার, শাহজাহান, মোতালেব পারভেজ, যুবনেতা তারেক আলম,মুহাম্মদ হারুন, এরশাদ আলম, কাউন্সিলর জানে আলম।ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার- কে এম আজাদ রানা, হাফেজ শাহাদাত হোসেন, মিনহাজুল আবেদিন, মহিউদ্দিন চোধুরী,মঈন উদ্দীন,আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমূখ। মূখ্য আলোচক কেন্দ্রীয় সিনিয়র সহ সভাপতি জি.এম শাহাদত হোসাইন মানিক বলেন, ছাত্রদের অধিকার আদায়সহ জনসম্পৃক্ত যে কোন আন্দোলনে ছাত্রসমাজ অগ্রনী ভূমিকা রেখেছে। সপ্ত মূলনীতি ও পঞ্চ কর্মসূচির আলোকে পরিচালিত বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার চট্টগ্রাম বিশাল অবস্থান রয়েছে। জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগে যেকোন বাধা প্রতিরোধ করতে ছাত্রসেনা মাঠে থাকবে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ভ্যানগার্ড রূপে নির্বাচনী আমেজ সৃষ্টি জনমত গঠন ও ভোট কেন্দ্র পাহারা দেয়ার দায়িত্ব ছাত্রসেনার। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা অহিংস, আদর্শিক, প্রশিক্ষিত ও সুশৃঙ্খল হিসেবে সবার নিকট পরিচিত। সেই অবস্থানকে কাজে লাগিয়ে ইসলামী ফ্রন্টের মোমবাতির জন্য জনমত গড়ে তুলুন। উল্লেখ্য- আগামী নির্বাচনে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে ছাত্রসেনার প্রস্তুতির জন্য বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। এতে ছাত্রসেনার উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড, ইউনিট, কলেজ, মাদ্রাসা ও স্কুল কমিটির কার্যকরি পরিষদের নির্দিষ্ট প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*