পটিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনে প্রস্তুতি সভাঃ

পটিয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনে প্রস্তুতি সভাঃবদিউল আলম

সেলিম চৌধুরী,পটিয়া প্রতিনিধি: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যোষ্ঠ্য সন্তান দেশের প্রধানমন্ত্রী আওয়ামীলীগ সভানেএী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন উপলক্ষে দেশরত্ন পরিষদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা, পটিয়া উপজেলা ও পটিয়া পৌরসভা কর্তৃক আয়োজিত এক প্রস্তুতি সভা শুক্রবার স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয় ।প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জন্মদিন পালনের উপর দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এবং চট্টগ্রাম (১২ পটিয়া) আসনে আওয়ামীলীগ মনোয়ন প্রত্যাশি জননেতা আলহাজ্ব বদিউল আলম । তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে যেমন বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না, তেমনি দেশরত্ন শেখ হাসিনার জন্ম না হলে দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি হতোনা । তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালন করা দেশের সব নাগরিকের দায়িত্ব ।এজন্য দেশরত্ন পরিষদ ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহন করেছে । উল্লেখ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদ ১৯৪৭ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর জম্মগ্রহণ করেন । তিনি বাংলাদেশের ১০ম জাতীয় সংসদের সরকার দলীয় প্রধান এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী।এসময় উপস্হিত ছিলেন দেশরত্ন পরিষদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী মোঃ শাহজান,সাবেক কমিশনার হাসান মুরাদ,সাবেক ছাএনেতা সাহাবুদ্দীন,চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা নির্মান শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক রফিক হাসান,আবুল বশর,নুরুল আলম, শ্রমিক নেতা সাইফু,মোঃ ইছাক,বাবলু,টিপু,রাসেল,সহ জেলা উপজেলার বিবিন্ন পর্য়ায়ের ৫ শতাদিক নেতা কর্মী উপস্হিত ছিলেন।যুবলীগ নেতা বদিউল আলম আরোও বলেন রাজনীতি কর্মীর চাওয়া পাওয়া হল মানুষের সেবা করা,আমি জীবনের ৩৫ বছর এ দলের সময় অর্থ ব্যায় করেছি বিনিময়ে জেয়াল জুলুম নির্য়াতন সহ্য করতে হয়েছে, দেশের মানুষকে বুজতে হবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল,পটিয়া উপজেলায় এখনও অনেক সমস্যা রয়েছে নেতৃত্বের ব্যার্থতার কারনে পিছিয়ে পডছে,তাই পটিয়ার হারোনো গৌরব উন্নয়ন পিরিয়ে আনতে দলের হাইকমান্ডের নির্দেশে মাঠে কাজ করে যাচ্ছি যেখানে যাচ্ছি জনগনের ব্যাপক ভালবাসায় সিক্ত পটিয়ার মানুষের আশা পুরনের জন্য আওয়ামীলীগের মাননীয় সভানেএী বিবিন্ন গোয়ান্দার এবং দলীয় আমল নামা গ্রহন পুর্বক নৌকার মাঝি নির্দারনের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির হস্তেক্ষেপ কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*