‘মুক্ত সাংবাদিকতা চর্চাকে বাধাগ্রস্থ করবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’

‘মুক্ত সাংবাদিকতা চর্চাকে বাধাগ্রস্থ করবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন’
নিজস্ব প্রতিবেদক ::ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা বলেছেন, ‘সবাই গুজব ছড়ায় না। কিছু লোক গুজব সৃষ্টি করে তার জন্য সমাজে কিছু বিশৃৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। কিন্তু এগুলো দমনে যদি আইন করা হয় তাহলে শুধু ওই লোকগুলোর উপর এর প্রভাব পড়ে না। রাস্ট্রের সকল জনগণের জন্য সেই আইন পাশ হয়। সম্প্রতি যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পাশ হয়েছে সেটি মুক্ত সাংবাদিকতা চর্চাকে বাধাগ্রস্থ করবে বলে মনে করেই সরকারের বিভিন্ন মহলের সাথে বার বার আলোচনার চেষ্টা করেছে সম্পাদক পরিষদ ও সাংবাদিক সংগঠনগুলো। তারা চেষ্টা করেছেন স্বাধীন সাংবাদিকতা চর্চা যেন এই আইনের মাধ্যমে বাধাগ্রস্থ না হয়।’
ঐতিহ্যবাহী শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের আয়োজনে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্ত সাংবাদিকতা চর্চায় বাধা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় ঢাকায় কর্মরত বিভিন্ন অনলাইন, প্রিন্ট ও ইলেট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যম কর্মী ও শ্রীমঙ্গলে কর্মরত স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের অংশ গ্রহণে এক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
শুক্রবার রাত ৯ টায় শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি-১ সাপ্তাহিক শ্রীমঙ্গল পরিক্রমা পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ইসমাইল মাহমুদ।
প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দৈনিক মানবজমিন প্রতিনিধি এম ইদ্রিস আলী’র সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন-দৈনিক যায়যায়দিনের কুটনৈতিক রিপোর্টার মির্জ্জা মসিউজ্জামান, পরিবর্তন ডট কমের সিনিয়র রিপোর্টার শাহদাৎ স্বপন, আমাদের নতুন সময়’র তাওসিফ সাইমুন, শীর্ষ নিউজ ২৪ ডটকমের সাদেকুর রহমান, ঢাকা টাইমস’র মু.সাখাওয়াত প্রিন্স, আমাদের সময় ডট.কমের আব্দুল্লাহ ফয়সাল, আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার সহকারী সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, স্টাফ রিপোর্টার আতাউর রহমান, জাস্ট নিউজ বিডি ডটকমের মনিরুল ইসলাম, যুগান্তরের স্টাফ রিপোর্টার জোবায়ের হাসান, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি হোসাইন আহমদ, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি সৈয়দ সালাউদ্দিন, বাংলাদেশ প্রতিদিনের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি দীপংকর ভট্টাচার্য লিটন, কলামিস্ট সৈয়দ আমিরুজ্জামান, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি সৈয়দ ছায়েদ আহমদ, ঢাকা ট্রিবিউন ও বাংলা ট্রিবিউনের জেলা প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম, দৈনিক নয়া দিগন্তের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি এম এ রকিব, দৈনিক ইনকিলাবের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি আনোয়ার হোসেন জসিম, সাপ্তাহিক শ্রীমঙ্গলের চিঠির সম্পাদক ইয়াসিন আরাফাত রবিন, সাপ্তাহিক চায়ের দেশের বার্তা সম্পাদক সনেট দেব চৌধুরী, দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি আবুজার বাবলা, দৈনিক আমাদের সময়ের শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি অরবিন্দু দেব, সাপ্তাহিক দেশ পক্ষ’র শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি কাওছার ইকবাল, আমাদের নতুন সময়’র শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি মো. সুমন মিয়া, সাপ্তাহিক পাতাকুড়ির দেশ’র শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি এহসান বিন মুজাহির প্রমূখ।
বক্তারা আরও বলেন, ‘গণমাধ্যম হলো রাষ্ট্রের চতুর্থস্তম্ভ এ কথা আমরা সকলে জানি। রাষ্ট্রের অবিচ্ছেদ্য অংশ এই মাধ্যমকে মুক্ত না রেখে যদি উপেক্ষা করা হয় তা রাষ্ট্রযন্ত্রের উপর প্রভাব ফেলবে। রাষ্ট্রযন্ত্র নড়বড়ে হয়ে পড়বে। তাই গণমাধ্যমকর্মীদের যথার্থ মূল্যায়নের দাবি জানাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*